কারো পৌষ মাস তো কারো সর্বনাশ

সুমিত ঘোষ, খবরইন্ডিয়াঅনলাইন, মালদাঃ কারো পৌষ মাস তো কারো সর্বনাশ। এই লক ডাউনে ক্ষমতার অপব্যবহার করে দিব্যি চালিয়ে যাচ্ছেন নিজের ব্যবসা। বেবি ফুডের আড়ালে প্রকাশ্য দিবালোকে প্রশাসনকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়ে লোডিং এবং আনলোডিং করা হচ্ছে চকলেট সহ বিভিন্ন সামগ্রী বলে অভিযোগ। মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অফ কমার্সের সম্পাদক জয়ন্ত কুন্ডুর গোডাউনের সামনে তথা মালদা শহরের রথবাড়ি এলাকার একটি ভিডিও এখন সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল। ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখাও গিয়েছে সম্পাদক জয়ন্ত কুন্ডুকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবি ভাইরাল হওয়ার পরই আন্দোলনে সামিল হয়েছেন বিভিন্ন ব্যবসায়ী মহল। মালদা ক্লথ মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক স্বপন বারুড়ী অভিযোগ করে বলেন, জেলার মানুষের সাথে জেলা প্রশাসন এবং মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের সিদ্ধান্ত মেনে দোকানপাট বন্ধ রেখেছেন তারা। কিন্তু এই সুযোগে মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের পদাধিকারীরা নিজেদের ব্যবসা চালু রেখেছেন। মার্চেন্টের অনেক পদাধিকারী ডিস্ট্রিবিউশন ব্যবসার সাথে জড়িত। নাম না করে মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের সম্পাদক জয়ন্ত কুন্ডু এবং যুগ্ম সম্পাদক উত্তম বসাকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন তিনি। তিনি আরো অভিযোগ করেন প্রশাসন কে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে চুটিয়ে ব্যবসা করছেন তিনি। বেবি ফুডের আড়ালে বড় বড় কন্টেনার গাড়িতে চকলেট সহ অন্যান্য সামগ্রী লোডিং এবং আন লোডিং করা হচ্ছে তার গোডাউন এর সামনে। একথা সবাই জানে। তাছাড়া ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে জয়ন্ত বাবু রিক্সা থেকে নামছেন সেই সময়। তিনি আরো বলেন তারা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। এইভাবে কিছু ব্যবসায়ীকে লোকসানের মধ্যে ফেলে নিজেদের ডিস্ট্রিবিউশন ব্যবসা চালিয়ে যাওয়ার জন্য চক্রান্ত করছেন তিনি। প্রশাসনের কাছে আর্জি রাখবেন বিষয়টি ভেবে দেখার। কারণ মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের ক্ষমতাকে অপব্যবহার করে লকডাউন এর মধ্যেও ব্যবসা করে চলেছেন তারা। যেখানে চকলেট সহ অন্যান্য সামগ্রী জরুরী পরিষেবার মধ্যে পড়ে না। কিন্তু তিনি বেবি ফুডের আড়ালে প্রতিদিন প্রশাসনকে অন্ধকারে রেখে ডিস্ট্রিবিউশন ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিষয়টি নিয়ে ফোনে জয়ন্ত বাবুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তা সম্ভব হয়নি।

আরও পড়ুন -  মহারাষ্ট্রের লাতুরে ৮,৭৯৭ জন দিব্যাঙ্গজনকে সাহায়ক সরঞ্জাম এবং সাহায্য প্রদানের জন্য এডিআইপি শিবিরের ই-সূচনা করেছেন শ্রী থেওরচাঁদ গেহলট

Leave a Comment