32 C
Kolkata
Tuesday, July 16, 2024

ন্যাটমো, কোভিড – ১৯ ড্যাশবোর্ডের সর্বশেষ চতুর্থ সংস্করণটি প্রকাশ করেছে

Must Read

খবরইন্ডিয়াঅনলাইন, নয়াদিল্লিঃ কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের অধীনস্থ ন্যাশনাল অ্যাটলাস অ্যান্ড থেমাটিক ম্যাপিং অর্গানাইজেশন (ন্যাটমো) কোভিড – ১৯ এর ড্যাশবোর্ডের সর্বশেষ চতুর্থ সংস্করণ প্রকাশ করেছে। নতুন এই ড্যাশবোর্ডে যে সব বৈশিষ্টগুলি রয়েছে, সেগুলি হল –
১) কোভিড – ১৯ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য পেতে চাইলে ব্যবহারকারীরা একটি ম্যাপ উইন্ডোর মধ্য দিয়ে ঢুকতে পারবেন।

২) কোভিড পরিসংখ্যানঃ- এই মানচিত্রে রাজ্য এবং জেলা ভিত্তিক সংক্রমিতের সংখ্যা, কতজন সুস্থ হয়েছেন, মৃত্যুর সংখ্যার এবং হার, সুস্থ হয়ে ওঠার হার সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য পাওয়া যাবে। হাসপাতাল, পরীক্ষাগার এবং ব্লাডব্যাঙ্কের মতো স্বাস্থ্য পরিষেবার খবরও ব্যবহারকারীরা এখান থেকে জানতে পারবেন।

৩) ড্রিলডাউনঃ- তথ্য পাওয়ার ক্ষেত্রে ড্রিলডাউনের পদ্ধতিতে একজন ব্যবহারকারী একটি নির্দিষ্ট রাজ্যকে বাছাই করে, সেই রাজ্যের জেলাভিত্তিক কোভিড সংক্রমণের ঘটনা ও স্বাস্থ্য পরিষেবার বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন। এ ছাড়াও জুম করে কোনো নির্দিষ্ট স্বাস্থ্য পরিষেবার বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য পাওয়া যাবে। পরিচিত ব্যক্তিত্বদের ঠিকানা এবং শহর বা গ্রাম, কোথায় তারা থাকেন, সেই তথ্যও সহজেই পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন -  সাইনাসের যন্ত্রণা দূর করুন

৪) শেষ ১৪ দিনে রাজ্যগুলির পরিসংখ্যান একটি তালিকার মাধ্যমে বিস্তারিতভাবে পাওয়া যাবে। যে দুটি রাজ্যে সব থেকে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে, মানচিত্রটি খুললেই প্রথমে সেই রাজ্যগুলির বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে। এর পর ড্রপডাউন পদ্ধতিতে ব্যবহারকারী যে রাজ্যের বিষয়ে তথ্য চাইবেন, সেই রাজ্যের পূর্ণাঙ্গ তথ্য স্ক্রীনে ভেসে উঠবে।

আরও পড়ুন -  Howrah Lok Court: সাড়ে ৫ কোটি অর্থের ঋণ মামলার নিস্পত্তি, হাওড়া লোক আদালতে

সারা বিশ্বজুড়ে কোভিড – ১৯ মহামারী একটি স্বাস্থ্য বিপর্যয়ে পরিণত হয়েছে। পৃথিবীর ২১৭টি রাষ্ট্রে এই মহামারির ফলে অভূতপূর্ব সঙ্কট দেখা দিয়েছে। ভারতও তার ব্যতিক্রম নয়। ৩০শে জানুয়ারী ভারতে প্রথম কোভিড সংক্রমণ ধরা পড়ে। এর পর যে উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তৈরি হয়, তার বিরূপ প্রতিক্রিয়া মোকাবিলা করার জন্য কেন্দ্র, নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। স্বাস্থ্য পরিকাঠামোতে এই মহামারীর ফলে বেশ সমস্যা দেখা দিয়েছে। সামাজিক আতঙ্ককে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য সচেতনতামূলক প্রচার চালানো হচ্ছে।

এই পরিস্থিতিতে মানুষকে উদ্বেগ থেকে মুক্তি দিতে ড্যাশবোর্ডের মাধ্যমে প্রকৃত তথ্য প্রকাশ করাই সবথেকে ভালো উপায়। ন্যাটমো, ১৪ই এপ্রিল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের জিওস্পেশাল গ্রুপের পরামর্শ অনুযায়ী কোভিড – ১৯ ড্যাশবোর্ড প্রকাশ করে। এই প্রসঙ্গে উল্লেখযোগ্য, অন্য যে সব কোভিড ড্যাশবোর্ডগুলি রয়েছে, সেখানে রাজ্য এবং জেলাভিত্তিক কোভিড সংক্রমিতদের তথ্যই কেবল দেওয়া হয়। কিন্তু ন্যাটমো, তার ড্যাশবোর্ডে স্বাস্থ্য পরিকাঠামোগত বিভিন্ন তথ্য দেওয়ায়, জনসাধারণ তার থেকে উপকৃত হন। পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটার সঙ্গে সঙ্গে বিষয় ভিত্তিক তথ্য পাওয়ার পর এই কোভিড – ১৯ ড্যাশবোর্ডটিতে পরিবর্তন ঘটানো হয়।

আরও পড়ুন -  সফল অস্ত্রপচার, সুস্থ ঐন্দ্রিলা শর্মা, অভিনেত্রীর মনোবল ছিল প্রবল

কোভিড – ১৯ মহামারি, খুব কম সময়ের মধ্যে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। ভৌগলিক, সামাজিক ও আর্থিক বিষয়গুলিকে বিবেচনা করে, এই মহামারির কারণ এবং এর প্রভাবের বিষয়ে বিস্তারিতভাবে এই ড্যাশবোর্ডের মাধ্যমে মূল্যায়ন করা যাবে। যার ফলে ভবিষ্যতে এই ভয়ঙ্কর অসুখটির মোকাবিলা করতে আমাদের সুবিধা হবে। সূত্র – পিআইবি।

Latest News

বন্ধ হচ্ছে মুরগির মাংসের জোগান, দুঃসংবাদ চিকেন প্রেমীদের জন্য

বন্ধ হচ্ছে মুরগির মাংসের জোগান, দুঃসংবাদ চিকেন প্রেমীদের জন্য।  পশ্চিমবঙ্গ পোল্ট্রি ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন ঘোষণা করেছে যে 18 জুলাই মধ্যরাত...
- Advertisement -spot_img

More Articles Like This

- Advertisement -spot_img